ভাবনার রঙে রঙীন

বেঁচে আছি…

সেলুন খুলছে, শর্ত একটাই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা; ঠিক আছে মাস্ক পড়ে দাড়ি কাটাবো, শোভনদেব চট্ট্যোপাধ্যায় বাবুর ছেলে শহরে ফিরলেন; ঠিক আছে সন্তান কে কাছে রাখা প্রয়োজন, ফিরলেন বাংলাদেশ থেকে আগত 169জন যাত্রী; ফিরতেই হতো, যে অটো 4জন যাত্রী নিয়ে একটা রুটে 36টাকা নিতেন তিনি নাহয় দুইজন নিয়ে 36টাকা নেবেন; ঠিক আছে যার পোষাবে যাবে না পোষালে যাবেনা।

হকার্স মার্কেট খুলছে শীঘ্রই, একদিন ছাড়া একদিন অল্টারনেট করে, খুব দরকার নাহলে বাঁচবে কি করে ব্যবসায়ীরা। এতো ভালো উদ্যোগের পর প্রশ্ন একটাই, এই উদারতার বলির পরিসংখ্যান পাবো কি পাবোনা জানিনা, কিন্তু পরিসংখ্যান নেওয়ার জন্য আমরা বাঁচবোতো? যে বাবা এই রাজ্যে আটকে, ভিনরাজ্যে আটকে থাকা সন্তান, স্ত্রীর জন্য প্রতিদিন দগ্ধ হচ্ছে সেও কি বেঁচে আছে বাঁচার মতো করে? কত প্রশ্ন, কত প্রশ্ন, কিন্তু করবো কাকে?

ধুর বেঁচে আছি এই না কত !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *