বলবয়

আমার বন্ধুতালিকার সকল বন্ধুদের ফলো করার ক্ষমতা আমার আক্ষরিক অর্থেই নেই। তাই সকলের সকল পোষ্টে লাইক বা কমেন্ট করার প্রশ্নও উঠেনা।

দ্বিতীয়ত, যেগুলো চোখে পরছে, সেগুলো পছন্দ না হলেও যে লাইক করতে হবে এমন মুচলেকাও কোথাও দিইনি। মন্তব্য করার মত বিষয় হলে অবশ্যই চেষ্টা করি। অনেক ক্ষেত্রেই বহু বিষয় আমার জ্ঞানের পরিধিররেখার বাইরে। তাই অজ্ঞানের মত মন্তব্য না করাই শ্রেয়।

কমেন্ট তো আমার মত করে প্রাসঙ্গিক না হলে করা হয়না এটাই সত্য। এর পরেও আমি আপনাদের বন্ধু তালিকায় থাকার যোগ্য কি না…

সেটা ভেবে দেখার প্রয়োজন আপনারই।

এই পৃথিবীতে সমাজ গঠনের জন্য কেবল মাত্র ২ জন মানুষই যথেষ্ট। বেশি ও হয় বা হতেই পারে। তাই বৃহত্তর সমাজগুলোও কোটি কোটি আনবিক সমাজে ভর্তি। তাই নিজের জগতে প্রত্যেকেই সামাজিক। আমার পছন্দ বা অপছন্দের উপর অন্যের সামাজিকতা অবশ্যই নির্ভর করেনা।

যে মানুষ নিজেকে ভালবাসেনা, সে অন্য কাওকে ভালবাসতে পারেনা। আর অহং বোধ না থাকলে আত্মসম্মানবোধ জাগ্রত হয়না। পরিমিত অহং বোধই আত্মবিকাশ ঘটায়। যাকে আত্মবিশ্বাস বলে ডাকা হয়।

বাকি প্রত্যেকের ব্যাক্তি স্বাধীনতা আছে চুপ থাকার। কারন সকল বিষয়ে প্রগলভতা আসলে মূর্খতারই নামান্তর।

জীবনটা যেহেতু ২০-২০ নয়, তাই এই ম্যাচে টেষ্টের মত বল ছারাটাও শিল্প। কারন আউট হওয়ার আগে দুটো নান্দনিক চার মারলে সেটাই করতালিতে স্বাগত হয়। আর ২০-২০ তে কতই তো চার ছয়ের বন্য হয়, ১০ নং ব্যাটসম্যান ও লাগাতার ছয় মারে তাকে আর যাই হোক, জাত ব্যাটসম্যান বলেনা।

আমি তো নিতান্তই বলবয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *