ভারতে করোনাক্রান্তের সংখ্যা আজ 70,000 ছারিয়ে গেল।

তাদের ‘বিকাশ’টা দেখুন: 1 থেকে 10000 - 74 দিন, দেশে লকডাউন। পুলিশের জন্য পাবলিকের পাছা ফাটানোর টাস্ক।

10000 থেকে 20000 – 9 দিন, থালা ঘন্টা বাজানো
20000 থেকে 30000 – 8 দিন, অকাল দীপাবলি
30000 থেকে 40000 – 6 দিন, আকাশ পথে ফুল বৃষ্টি
40000 থেকে 50000 – 4 দিন, মদের ছাড়পত্র
50000 থেকে 60000 – 4 দিন, ট্রেন চালু
60000 থেকে 70000 – 3 দিন, বাস চালু
70000 থেকে…….. – আত্ম স্বনির্ভর হয়ে উঠো, পাতি বাংলায় সরকার হাত তুলে নিয়েছে।

তার কিছু দেবার নেই- না বুদ্ধি না অর্থ না দিশা। রাজকোষের বাকি-বাঁচা ধণরাশি কিছু গুজরাতি চোরেদের মাঝে বিলিয়ে দেবে। আপনার আমার বরাদ্দে অনলি প্রবচন।

শেষ ৭ দিনে ২০ হাজার। বগল বাজানো, টাক বাজানো, আছোলা দেওয়া সহ এমন অনেক ইনোভেটিভ টাস্ক আসা বাকি।

বাধাই হো- এরপরের ক্রনোলজি গুলোর জন্য প্রস্তুত থাকুনঃ- বসন্ত উৎসবের মত রঙখেলা, করোনার বিরুদ্ধে ব্রিগেডে ঐতিহাসিক জমায়েত, IPL চালু, ভোট চালু, ঈদের কোলাকুলি শেষে- দশমীর ভাসান।

মদের দোকানের মত বাকি সব প্রতিষ্ঠানগুলোও খুলে দেওয়া হোক, তাহলে আমরা দিনে ৩০-৪০ হাজার করে লক্ষ্য ছুঁতে পারব। আমেরিকাকে টপকানোই হোক আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। তার সাথে একটা ভ্যানে ৭০টা চোঙা আর ১২টা DJ বক্স বেঁধে রাশের আড়ং টাস্ক চাই।

মিত্রোঁ, হামারি ইয়ে মাঙ্গ পুরি হোনা চাহিয়ে কি নেহি চাহিয়ে?
শোচ সমঝকে জবাব দিজিয়ে।

আর হ্যাঁ মোদীজি যতদিন বেঁচে থাকবেন, ততদিনিই লকডাউন থাকুক।

Leave A Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *