তাহলে এটা পড়ুন

আপনার জন্য রইল একটা দুর্দান্ত সুযোগ।

১. নিচের বিধিগুলোর সাথে সহমত পোষণকারী যে কেউই ‘পাণ্ডুলিপি’ ঊর্ণ পত্রিকাতে নিজের লেখনী দক্ষতা প্রতীতি করতে পারবেন।

ক) পাণ্ডুলিপি একটি সামাজিক বিষয়ক ঊর্ণ পত্রিকা তথা web magazine, যেখানে বাবা আদম থেকে ব্ল্যাকহোল তত্ত্ব, গ্রীনল্যান্ডের বরফ থেকে আন্টার্কান্টিকার পেঙ্গুইন, কিম জং উন থেকে ট্রাম্প, সকল বিষয় অনায়াসে থাকতে পারে যদি আপনি লিখতে পারেন। গল্প, প্রবন্ধ, কবিতা, প্রতিবেদন ইত্যাদি নাম্নী বিষয়ে যা কিছু থাকা সম্ভব ‘সাদাকালতে’- সব বিষয়েই লেখা যাবে।

খ) পাণ্ডুলিপি’র মূল উদ্দেশ্য বাংলা সাহিত্যের বর্তমান ধারাকে সংরক্ষণ করা ও সেগুলোকে বিশ্বজনীন ভাবে পরিবেশন করা- যে লেখকদের জন্য কোনও স্বীকৃত মঞ্চ আগ্রহ দেখায়নি। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা এমন বহু অনামী কলম আছেন, যার লেখনী প্রতিষ্ঠিত অনেক কলমের চেয়ে বেশি ভারীই শুধু নয়, অনেক ক্ষেত্রে টেক্কা দেবার ক্ষমতা রাখেন; তাদের জন্যই পাণ্ডুলিপি উৎসর্গীত।

গ) ধর্ম বিষয়ে উস্কানিমূলক ও রাজনৈতিক প্রচারণা বিষয়ক কোনো লেখা এখানে প্রকাশ করা হবেনা, এটা কঠোরভাবে নিষিদ্ধ।

ঘ) কপিরাইট উন্মুক্ত নয় এমন কোন লেখা এখানে দেওয়া যাবে না।

ঙ) প্রবন্ধ, নিবন্ধ বা প্রতিবেদন হলে সেখানে অবশ্যই নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র উল্লেখ করতে হবে।

চ) ন্যূনতম ৪০০ শব্দের নিচে কোনও লেখা প্রকাশ করা হবেনা। কবিতার ক্ষেত্রে ব্যাতিক্রমি, তবে সোশ্যাল মিডিয়ার ‘টু-লাইনার’ এক্কেবারে বাতিল।

ছ) প্রতিটি লেখায় ব্যবহৃত তথ্যাবলী, ঘটনাপঞ্জী, চরিত্রদল বা অন্য যাবতীয় সকল কিছু বিষয়ের সম্পুর্ণ স্বত্বাধিকার ও দায় সংশ্লিষ্ট লেখকের বা লেখক কর্তৃক উল্লেখিত ব্যাক্তির; এক্ষেত্রে অনান্য লেখক বা পাণ্ডুলিপি কর্তৃপক্ষ সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ, উদাসীন ও দায়মুক্ত।

জ) পান্ডুলিপিতে প্রকাশিত কোনো লেখা, সেই লেখকের নাকি অন্য কারোর এই বিষয়ে অনুসন্ধান করার মত পরিকাঠামো নেই পাণ্ডুলিপি কর্তৃপক্ষের, এটি একটি সম্পুর্ন স্বেচ্ছাসেবী অন্তর্জালীয় প্রতিষ্ঠান। তাই অন্যের লেখা নিজ নামে ছাপলে সে দায় একান্তই লেখকের, পাণ্ডুলিপি কর্তৃপক্ষ কোনো দায় নেবেনা। পাণ্ডুলিপি কখনও কোনো প্রকারের মেধাস্বত্ত্ব চুরিকে (Plagiarism) সমর্থন করেনা, বরং এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা করে।

ঝ) যে কোনো লেখা, লেখকের নামসহ- পাণ্ডুলিপি কর্তৃপক্ষ অন্য ‘যেখানে-যেকোনো মাধ্যমে খুশি’ প্রকাশ করার ক্ষেত্রে লেখকের মত সমানাধিকার রাখবে।

২. সদস্যপদের ক্ষেত্রে  নিয়মঃ

পাণ্ডুলিপি সম্পুর্ন নিঃশুল্ক, পরবর্তী লিখিত ঘোষণা না আসা পর্যন্ত। স্বভাবতই এখানে সদস্য হতে কোনও আর্থিক লেনদেন হয়না, লেখনীর মানদণ্ডই একমাত্র বিচার্য। পান্ডুলিপিতে দুই পর্যায়ের লেখক রয়েছেন।

ক) অভিবাসী

যেকোনো ব্যাক্তি তথা লেখক তার নিজস্ব লেখা ‘পাণ্ডুলিপি’ কর্তৃপক্ষকে ইমেলের মাধ্যমে পাঠাতে পারেন, ঠিকানাঃ okopot.okopot@gmail.comcontact@pandulipi.in  । সংশ্লিষ্ট লেখা পাণ্ডুলিপির সম্পাদকমণ্ডলী দ্বারা মনোনীত হলে তা সংশ্লিষ্ট লেখকের নামে পন্ডুলিপি কর্তৃপক্ষ দ্বারা ঊর্ণ পত্রিকাতে প্রকাশিত হবে। সপ্তাহে সর্বোচ্চ তিনটি লেখা প্রকাশিত হতে পারে, প্রয়োজনে লেখকের সাথে আলাপ-আলোচনার নিরিখে সম্পাদনা করা হতে পারে। এছাড়া নিয়মিত পরিসরে- সুচিন্তিত মন্তব্য করতে হবে অন্যান্য লেখকদের লেখাতে।

খ) লিপিকার

কমপক্ষে ১০টি লেখা ‘অভিবাসী’ লেখক রূপে প্রকাশ পাওয়ার পর, ‘লিপিকার’ সদস্য পদের জন্য পাণ্ডুলিপি কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন রাখতে পারবেন সংশ্লিষ্ট লেখক।

এনারা একান্তই পাণ্ডুলিপি’র জন্য লিখবেন ফেসবুক ব্যাতিরেকে। গোদা বাংলাতে পাণ্ডুলিপি ছাড়া অন্য কোনও ‘ওয়েব ব্লগে’ তাঁর লেখা প্রকাশিত হবেনা। যদিও ছাপা কাগজে প্রকাশনার বিষয়টা লেখকের নিজস্ব এক্তিয়ারভুক্ত। লিপিকারদের রয়েছে অবাধ স্বাধীনতা, তাঁদের লেখা কোনো প্রকার সম্পাদনা করা হবেনা, সরাসরি লেখক তাঁর লেখা পান্ডুলিপিতে প্রকাশ করতে পারবেন যতখুশি অর্থাৎ এখানে সংখ্যারও কোন উর্ধ্বসীমা নেই।

এই ধরনের সদস্যেরা পাণ্ডুলিপিরই মন্তব্য বিভাগে নিয়মিত সুচিন্তিত মন্তব্য/অভিমত জ্ঞাপন করে, পারস্পারিক ভাবের আদান প্রদান স্বরূপ একটা সাহিত্য পরিমণ্ডল গড়ে তুলবেন।

পাণ্ডুলিপি ব্লগের নীতিমালার সাথে কি আপনি একমত? তাহলে মাত্র এক মিনিটের মধ্যে পাণ্ডুলিপিতে যুক্ত হয়ে নিজের লেখনী শিল্পকে উন্মুক্ত করুন বিশ্বের কাছে।

বিশেষ উল্লেখ্যঃ পাণ্ডুলিপি কর্তৃপক্ষ যে কোন সময় উপরোক্ত  নীতিমালায় পরিবর্তন-পরিবর্ধন-সংশোধন-সংযোজন করার  ক্ষমতা রাখেন।

2 comments on “তাহলে এটা পড়ুন”

  1. প্রীতম সী Reply

    বাহ্… খুব সুন্দর একটি প্ল্যাটফর্ম।

    এই ধরনের প্ল্যাটফর্ম থেকে যাত্রা শুরু করতে কে না চায় !!

    কিন্তু যাত্রা শুরুর আগে প্ল্যাটফর্ম সম্বন্ধে ভালো করে জেনে নেওয়া উচিৎ।
    এই ব্লগের উপযুক্ত পাঠক হতে পারলে, তবেই সম্ভব এই ব্লগের লেখক হওয়া।

    আমিও হতে চাই এই ব্লগের সদস্য। তবে তার আগে উপযুক্ত যোগ্যতা অর্জন করে নিতে চাই একজন নিয়মিত পাঠক হয়ে।

    এখানকার সকল লেখককে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।।

  2. Palash Mondal Reply

    পাঠক হতে পেরে গর্বিত।
    পথচলার শুরু থেকেই সাজানো গোছানো পরিপাটি পান্ডুলিপি প্রথম বারেই আমার নজর কেড়েছিল।

Leave A Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *